বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৫ ২০২৪ | ১২ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - গ্রীষ্মকাল | ১৫ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সাইবার নিরাপত্তায় যুক্তরাষ্ট্রে সিসিএ ফাউন্ডেশন উপদেষ্টার সাফল্য

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাইবারবার্তা: নিজ মেধা মননের বিকাশ ঘটিয়ে ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে নিজের অবস্থান সুদৃঢ় করে নিয়েছেন বাংলাদেশি আমেরিকান,  সাইবার ক্রাইম অ্যাওয়ারনেস ফাউন্ডেশনের (সিসিএ ফাউন্ডেশন) উপদেষ্টা শেখ গালিব রহমান। দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বলে ও কমিউনিটির মানুষের পাশে থাকতে করে যাচ্ছেন কঠোর পরিশ্রম। সম্প্রতি তিনি করপোরেট সাইবার সিকিউরিটি সার্টিফিকেট সিআইএসএসপি অর্জন করেছেন।

 

সিআইএসএসপি বা সার্টিফাইড ইনফরমেশন সিস্টেমস সিকিউরিটি প্রফেশনাল হচ্ছে সাইবার সিকিউরিটি ইন্ডাস্ট্রির সর্বোচ্চ সার্টিফিকেট। আইএসসিটু অর্গানাইজেশন খুব কড়াকড়িভাবে এবং সর্বোচ্চ নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে এই পরীক্ষাটি নিয়ে থাকে। টানা ছয় ঘণ্টা ধরে চলে পরীক্ষাগুলো এবং পুরোটা সময়জুড়ে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার মাধ্যমে আইএসসিটু-এর পরীক্ষকরা পর্যবেক্ষণ করেন।

 

আইএসসিটু-এর ওয়েবসাইট থেকে জানা যায়, পৃথিবীর ১৭০টি দেশের মধ্যে সিআইএসএসপি সার্টিফিকেটধারীর সংখ্যা এক লাখ ৪৭ হাজার ৫৯১ জনের। এর মধ্যে ৯২ হাজার ৯৩৮ জন আমেরিকায়, ২৭২৭ জন ভারতে এবং মাত্র ২২ জন রয়েছেন বাংলাদেশে।

 

একজন বাংলাদেশি-আমেরিকান হিসেবে সিআইএসএসপি সার্টিফিকেট অর্জন করতে পারায় কমিউনিউটির মুখ তিনি উজ্জ্বল করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন একাধিক প্রবাসী বাংলাদেশি আমেরিকান।

 

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে শেখ গালিব রহমান বলেন, এটি আমার জীবনের সবচেয়ে কঠিন এবং কড়া পরীক্ষা ছিল। তবে উত্তীর্ণ হতে পেরে সত্যিই খুব আনন্দ লাগছে। এ সময় তিনি তার বাবা-মা এবং পেশাগত জীবনের সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, আসুন আমরা একটি কমিউনিটি তৈরি করি এবং আমাদের আরও অনেককে সিআইএসএসপি সার্টিফিকেট পেতে সহায়তা করি।

 

উল্লেখ্য, দেড় যুগেরও বেশি সময় ধরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করে আসছেন শেখ গালিব রহমান। মহামারি করোনাকালে কমিউনিটির মানুষের পাশে থাকার স্বীকৃতি হিসেবে লাভ করেছেন কোভিড-১৯ হিরো অ্যাওয়ার্ড। এছাড়াও তিনি মেইনস্ট্রিম আইটি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ট্রান্সফোটেক একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

 

(সাইবারবার্তা.কম/এমএ/৫এপ্রিল২০২১)

শেয়ার করুন

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
আরও পড়ুন

নতুন প্রকাশ