শুক্রবার, জুলাই ১৯ ২০২৪ | ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - বর্ষাকাল | ১২ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

বিদেশে গমনিচ্ছুকদের প্রতারণা থেকে রক্ষা করবে রেইমস

সাইবারবার্তা ডেস্ক: বিদেশে গমনিচ্ছুক ব্যক্তিগণ ও রিক্রুটিং এজেন্সি যাতে সঠিত তথ্য পেতে পারে এবং দালালদের প্রতারণা থেকে রক্ষা পাওয়া যায় সেই লক্ষ্যে তৈরি করা হয়েছে ক্লাউড-ভিত্তিক অটোমেশন সিস্টেম ‘রিক্রুটিং এজেন্সিজ ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (রেইমস)।

শনিবার (২৭ মার্চ ২০২১) রাজধানীর একটি হোটেলে সিস্টেমটির উদ্বোধন করেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ, এমপি। সিসটেক ডিজিটাল লিমিটেড এর তৈরি ক্লাউড-ভিত্তিক এই অটোমেশন সিস্টেমটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন এসডিসি’র হেড অব কোঅপারেশন সুজান মেলার, বাংলাদেশে নিযুক্ত ইইউ এর প্রতিনিধি মৌরিজিও সিয়ান, আইএলও ঢাকার কান্ট্রি ডিরেক্টর তুমো পাউশেনিন, বিএমইটির মহাপরিচালক মো. শামসুল আলম, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাগণ এবং বিএমইটি ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিবৃন্দ।

আরএআইএমএস এর উদ্বোধন করে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী বলেন, এই সিস্টেমটি ব্যবহারের মাধ্যমে বিদেশ গমনিচ্ছুক ব্যক্তিগণ ও রিক্রুটিং এজেন্সিসমূহ সঠিক তথ্য পাবেন এবং দালালদের প্রতারণা থেকে তারা রক্ষা পাবেন। তিনি এই সিস্টেমের যথাযথ ব্যবহারের উপর বিশেষ গুরুত্বারোপ করেন।

উল্লেখ্য, রেইমস (জঅওগঝ) হলো একটি ক্লাউড-ভিত্তিক অটোমেশন সিস্টেম, যা বাংলাদেশের ১৬০০ এরও অধিক প্রবাসী কর্মী নিয়োগকারী সংস্থার প্রয়োজনীয় তথ্য এবং তাদের বিদেশে কর্মচারি পাঠানো সংক্রান্ত কর্মদক্ষতার সকল প্রকার প্রতিবেদন প্রদান করে থাকে। এই তথ্য ব্যবস্থাপনা সফটওয়্যারটি তাৎক্ষণিকভাবে হালনাগাদ উপাত্ত প্রদান করে যা দিয়ে বিএমইটি, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, নিয়োগকারী সংস্থা এবং বিদেশ গমনিচ্ছুক শ্রমিক কর্মীরা তাদের সঠিক সিদ্ধান্তসমূহ নিতে পারেন। এটি ব্যবহারের মাধ্যমে প্রাপ্ত সুবিধাগুলোর মধ্যে অন্যতম হলোÑ নিয়োগকারী সংস্থাসমূহের হালনাগাদ তথ্য, সংস্থাসমূহের লাইসেন্স সংক্রান্ত তথ্য, অনুমোদিত প্রতিনিধির তথ্য, বৈদেশিক প্রতিনিধির তথ্য, শাখাসমূহের তথ্য, কর্মী প্রেরণ সংক্রান্ত তথ্য, প্রশিক্ষণ কেন্দ্রসমূহের তথ্য, এজেন্সিসমূহের কর্মদক্ষতা মূল্যায়ন, অভিযোগ ও তার নিষ্পত্তির রেকর্ড ও স্বয়ংক্রিয় নোটিফিকেশন ব্যবস্থা।

স্ইুস এজেন্সি ফর ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড কোঅপারেশন (এসডিসি) এর অর্থায়নে এটি বাস্তবায়ন করেছে ইন্টারন্যাশনাল লেবার অর্গানাইজেশন (আইএলও)।

সৌজন্যে: টেকজুম

(সাইবারবার্তা.কম/জেডআই/২৮মার্চ,২০২১)

শেয়ার করুন

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
আরও পড়ুন

নতুন প্রকাশ