বুধবার, জুন ২৩ ২০২১ | ৯ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ - বর্ষাকাল | ১২ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

অবশেষে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট যাচ্ছে পার্বত্য তিন জেলায়

সাইবারবার্তা ডেস্ক: খাগড়াছড়ি, রাঙ্গামাটি ও বান্দরবান জেলাকে শক্তিশালী প্রযুক্তিগত যোগাযোগ নেটওয়ার্কের আওতায় আনতে ৫৯টি ইউনিয়নে অপটিক্যাল ফাইবার স্থাপন করতে যাচ্ছে সরকার। দুর্গম এলাকা হওয়ায় সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে এই কাজের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে।

 

বুধবার (১৩ জুন) অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ১৬তম বৈঠকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রকল্পটির প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব শামসুল আরেফিন।

 

সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ২০তম এই বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব, সংশ্লিস্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। ওই বৈঠকেই বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের ১১টি প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়।

 

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব শামসুল আরেফিন সংবাদিকদের জানান, দুর্গম এলাকায় স্থায়ী নেটওয়ার্ক স্থাপনের লক্ষ্যে “টেলিযোগাযোগ সুবিধা বঞ্চিত এলাকাসমূহের ব্রডব্যান্ড কানেক্টিভিটি স্থাপন (কানেক্টেড বাংলাদেশ)” প্রকল্পের অধীন পার্বত্য অঞ্চলের তিনটি জেলায় (বান্দরবান, রাঙ্গামাটি ও খাগড়াছড়ি) মোট ৫৯টি ইউনিয়নে অপটিক্যাল ফাইবার নেটওয়ার্ক স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

 

তিনি বলেন, “আজ অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ১৬তম এবং সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ২০তম সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠকে পার্বত্য অঞ্চলের ইউনিয়নগুলো অতিদুর্গম বিধায় নিরাপত্তা ঝুঁকি ও পারিপার্শ্বিক প্রতিবন্ধকতার কথা বিবেচনা করে অপটিক্যাল ফাইবার নেটওয়ার্ক স্থাপন কাজ বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মাধ্যমে সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে ক্রয়ের প্রস্তাব নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।“

 

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিল ব্যবস্থাপনা কমিটির এক বৈঠকে ‘দুর্গম এলাকায় তথ্য প্রযুক্তি নেটওয়ার্ক স্থাপন (কানেক্টেড বাংলাদেশ)’ প্রকল্পটি ‘সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিল’ এর অর্থায়নে ৪৭৬ কোটি ৭ লাখ টাকায় প্রাক্কলিত ব্যয়ে এবং ২০১৮ সালের জুলাই থেকে শুরু হয়ে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মেয়াদে বাস্তবায়নের জন্য অনুমোদিত হয়। তখন জানানো হয়, প্রকল্পটি বাস্তবায়নে আট হাজার ১০৬ কিলোমিটার অপটিকাল ফাইবার কেবল প্রয়োজন হবে। এগুলো সংগ্রহ করতে সরকারের ব্যয় হবে মোট ১১০ কোটি ৭৩ লাখ টাকা।

 

(সাইবারবার্তা.কম/আইআই/১০ জুন ২০২১)

শেয়ার করুন

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
আরও পড়ুন

নতুন প্রকাশ