মঙ্গলবার, জুলাই ১৬ ২০২৪ | ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - বর্ষাকাল | ৯ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

ভারতে সাইবার হামলা করতে পারে চীন

সাইবারবার্তা ডেস্ক: ভারত-চীন সীমান্ত সমস্যা নিয়ে দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর চীনের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক বর্তমানে বেশ খানিকটা উন্নতির দিকে। এমন পরিস্থিতিতে ভারতের চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত জানালেন, চীনের প্রযুক্তি যেভাবে ভারতের থেকে এগিয়ে রয়েছে। তার আশঙ্কা, চীনের পক্ষে কোনও বড় সাইবার হামলা ভারতের ওপর আসতে পারে। জেনারেল রাওয়াত জানিয়েছেন, চীন শক্তপোক্ত প্রযুক্তি নির্ভর দেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করছে।

 

প্রযুক্তির দিক থেকে চীন ভারতের চেয়ে অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে। দু’দেশের মধ্যে বিস্তর পাথক্য রয়েছে। চীন নতুন প্রযুক্তিতে প্রচুর বিনিয়োগ করেছে। ফলে চীনের পক্ষে ভারতের ওপর সাইবার হামলার ঘটনা কোনও নতুন বিষয় নয়।

 

তবে বিপিন রাওয়াতের মতে, এমন আশঙ্কা করে ভারতও পিছিয়ে নেই। সাইবার সিকিউরিটির দিক থেকে ভারত একটি প্রতিরক্ষা দল গড়ে তুলতে শুরু করেছে। আশঙ্কা রয়েছে যে চীন, ভারতের সাইবার নিরাপত্তায় বড়সড় হামলা আনতে পারে। ভারতকে তার বন্ধু দেশের মধ্যে কোনওরকম নিরাপত্তাহীনতা তৈরি না করেই এই ধরনের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে হবে।

 

ভারতের সেনাবাহিনীর উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন যে, দেশের সুরক্ষার প্রশ্নে পশ্চিমা বিশ্বের দিকে নজর দেওয়া উচিত নয় বরং এর পরিবর্তে বিশ্বকে বলা উচিত যে, তারা ভারতে আসুক এবং বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় ভারতের বিশাল অভিজ্ঞতা থেকে শিখুক। সাইবার অ্যাটাক কীভাবে হতে পারে তার ‘ডাউন টাইম’ ও প্রভাব আঁচ করে ভারত পাল্টা রণসজ্জা তৈরি শুরু করেছে।

 

সিডিএস বিপিন রাওয়াত জানিয়েছেন, ফায়ার ওয়াল ভেঙে সাইবার সিস্টেম ক্ষতিগ্রস্ত করার ক্ষমতা চীন রাখতে পারে। তবে তা রুখতে পাল্টা ভারতও নিজের প্রযুক্তির ওপর কাজ করছে।

 

জেনারেল রাওয়াত বলেছেন যে কূটনীতি এবং পর্যাপ্ত প্রতিরক্ষা ক্ষমতা দিয়ে ভারত বাহ্যিক হুমকি মোকাবিলা করতে পারবে।

 

তবে একই সাথে উল্লেখ করেছেন- শক্তিশালী রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান, অর্থনৈতিক বৃদ্ধি, সামাজিক সম্প্রীতি, কার্যকর আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থা, দ্রুত বিচার বিভাগীয় সমস্যার সমাধান এবং সুশাসন হল অভ্যন্তরীণ স্থিতিশীলতার প্রথম ধাপ। সূত্র: কলকাতা২৪

 

(সাইবারবার্তা.কম/এন‌টি/এমএ/৯ এ‌প্রিল ২০২১)

শেয়ার করুন

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
আরও পড়ুন

নতুন প্রকাশ