সোমবার, জুলাই ১৫ ২০২৪ | ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ - বর্ষাকাল | ৮ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

যেভাবে ক্যামেরার ফাঁদ পেতে খুন হলেন হবিগঞ্জের যুবক

সাইবারবার্তা ডেস্ক: হবিগঞ্জে প্রবাসী স্বামী-স্ত্রীর ব্যক্তিগত ছবি ও ভিডিও ধারণ করে ব্ল্যাকমেইল করার কারণেই খুন হয়েছেন নিজাম উদ্দিন নামে এক কর্মচারী। ব্ল্যাকমেইল করে প্রবাসীর স্ত্রীকে বিয়ে করে আমেরিকা যাওয়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন নিজাম। মানসিক চাপ নিতে না পেরে নিজামকে হত্যা করেন ভুক্তভোগীরা।

শনিবার দুপুরে নিজ কার্যালয়ের সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানান হবিগঞ্জ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা।

জেলা পুলিশের এই শীর্ষ কর্মকর্তা জানান, এ ঘটনায় গত ১৭ মার্চ দেশত্যাগের সময় ঢাকা হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে আমেরিকা প্রবাসী হানিফ উল্লাহ(৩৫) ও তার স্ত্রী রোমানা আক্তারকে(৩০) গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে শুক্রবার (১৯ মার্চ) রাত সাড়ে ১০টায় সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি-১ আদালতে তারা ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

গ্রেপ্তারদের স্বীকারোক্তির বরাত দিয়ে পুলিশ সুপার জানান, প্রায় চার বছর আগে স্ত্রী ও দুই মেয়েসহ আমেরিকা চলে যান হানিফ উল্লাহ। ২০২০ সালের নভেম্বরে স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে দেশে আসেন। দীর্ঘদিন তাদের বাসায় ভাড়াটিয়া হিসেবে থাকার সুবাদে নিজাম উদ্দিনের সঙ্গে তাদের সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে। এ সুযোগে আমেরিকা প্রবাসী হানিফ উল্লাহর ঘুমের ঘরে ও বাথরুমে গোপন ক্যামেরা লাগিয়ে রেখে তার স্ত্রী রোমানার গোসলের ভিডিও ও স্বামী-স্ত্রীর যৌনমিলনের ভিডিও ধারণ করে রাখেন নিজাম উদ্দিন। পরে সেই ভিডিও ও ছবি রোমানাকে দেখিয়ে অনৈতিক প্রস্তাব দেয়।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা জানান, এ ঘটনায় ১৫ মার্চ নিহত নিজাম উদ্দিনের বাবা ইমাম উদ্দিন বাদী হয়ে আমেরিকা প্রবাসী স্বামী-স্ত্রীসহ চারজনের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা করেন।

এ ঘটনায় বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলেও জানান তিনি। সৌজন্যে: ঢাকাটাইমস

(সাইবারবার্তা.কম/কেএস/জেডআই/২০মার্চ২০২১)

শেয়ার করুন

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
আরও পড়ুন

নতুন প্রকাশ